নিজেকে ভালোবাসুন আর ভালো থাকুন নিরন্তর

Published : জুলাই ১০, ২০১৭ | 1067 Views

ভালো থাকার ভালো উপায়

 ভালো থাকার অনেক মাত্রা আছে। আছে অনেক পথও। কিন্তু কিছু বিরক্তিকর রোগ থেকে ভালো থাকার জন্য আপনি আগেই কিছু সর্তকতা অবলম্বন করতে পারেন। সানন্দে জেনে নিই সে রকম কিছু বিষয়।

ব্লাডপ্রেসার কম রাখুন
মাঝে মধ্যে ব্লাডপ্রেসার একটু আধটু এদিক ওদিক হতেই পারে কিন্তু নিম্ন রক্তচাপ বা উচ্চ রক্তচাপ ভালো জিনিস নয় একেবারেই। তাই কয়েকটা ব্যাপারে নজর দিন-
নুন খাওয়া কমিয়ে দিন পারলে কাঁচা নুন বন্ধ করুন। উচ্চ রক্তচাপ থাকলে উত্তেজনা এড়িয়ে চলুন সর্বতভাবে। রাগ-বিরক্তির প্রকাশে সংযত হোন। চিৎকার চেঁচামেচি একেবারে নয়। দিনে পনেরো-কুড়ি মিনিট ধ্যান অভ্যাস করার চেষ্টা করুন। রক্তচাপের ক্ষেত্রে বিশেষ উচ্চ রক্তচাপের ক্ষেত্রে রিলাক্সেশন খুব উপকারী জিনিস।
কঠিন হলেও দৈনন্দিন মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার উদ্যোগ এখন থেকেই নিন। শরীরের ওজন যাতে বয়স, উচ্চতা ইত্যাদি অনুযায়ী ঠিক থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। খাদ্যতালিকায় রসুন, সামদ্রিক মাছ, কাঁচা মরিচ, ব্রকোলি, স্ট্রবেরি রাখুন। ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম খান। খান ফল, শাকসব্জি একটু বেশি পরিমাণেই।
ধুমপান ত্যাগ করুন। ছেড়ে দিন ড্রিংক করা অভ্যাস থাকলেও। ব্লাড প্রেসার চেক-আপ করানোর আগে পনেরো মিনিট বিশ্রাম নিয়ে নিন। মনে কোনো উদ্বেগ অশান্তি নিয়ে ব্লাড প্রেসার চেক করাতে যাবেন না। এতে ঠিক রিডিং নাও পাওয়া যেতে পারে। ঢেঁকি ছাটা চাল, ভুসিযুক্ত আটার রুটি, টাটকা ফল, সব্জি রোজ খান।
মাথার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি নিন
মাথাব্যথা সারা জীবনের সমস্যা। কত কারণে মাথাব্যথা হতে পারে দেখুন-বেশি প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খেলে, বেশি দুশ্চিন্তা, দুর্ভাবনা করলে, কৃত্রিম রংযুক্ত প্রোসেসড খাবার বেশি খেলে, প্রিজারভেটিভ দেয়া খাবার নিয়মিত খেলে, ব্যায়াম না করলে, পরিবেশ দষণ থেকে, বেশি ক্যাফিন খেলে, ঠলাডসুগার খুব কম হলে, হাঁটাচলা বা বসার ভঙ্গি ঠিক না থাকলে, বেশি ঠান্ডা খাবার খেলে, জোরালো আলো বা প্রখর সর্যালোকে থাকলে, বেশি আওয়াজ শুনতে শুনতে, জন্ম নিরোধক বড়ি নিয়মিত খেলে। এসব ছাড়াও আরও অনেক কারণ থাকতে পারে মাথাব্যথার।
তাই এসব ব্যাপারে সতর্ক থাকলে মাথাব্যথার সম্ভাবনা কমিয়ে ফেলা যায়। এছাড়া মাথাব্যথা উপশমের জন্য মাথাব্যথা করার সময় পজিটিভ চিন্তা করুন। মন প্রফুল্ল রাখার জন্য কষ্ট হলেও চেষ্টা করুন। মাথাব্যথার সময় নেগেটিভ চিন্তা একেবারে করবেন না।

ক্যান্সার আটকান
ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমাতে চান তো ব্রকলি খান। দেখা গেছে ফুলকপি, সরষে, বাঁধাকপি, টার্নিপ কোলন, পাকস্থলী, ব্রেস্ট এবং আরও কয়েক ধরনের ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা অনেকখানি কমিয় দেয়।

বজ্রপাতে উপকার
বজ্রপাতের পর বা সমুদ্রতীরে, জলপ্রোপাতের পাশে দাঁড়িয়ে যদি বোধ করেন যে বেশ চনমনে লাগছে তা হলে বুঝতে হবে আপনি বাতাসের বিদ্যুতায়িত কণা  দ্বারা প্রভাবিত হয়েছেন। এটা দু রকমের-পজিটিভ, নেগেটিভ। নেগেটিভ আয়ন-ই আমাদের মন শান্ত, প্রফুল্ল রাখে। নেগেটিভ আয়ন-এর উপকারিতা পাওয়ার উপায় কি? দেখা গেছে গতিশীল পানি নেগেটিভ আয়ন তৈরি করে। আবার বদ্ধ জায়গা, ঘর, শীতাতপ-নিয়ন্ত্রিত স্থান স্থিতিকারক পজিটিভ আয়ন সৃষ্টির সহায়ক। তাই কয়েকটা জিনিস করতে পারলে ভালো। ঘরদোর বন্ধ রাখবেন না, যথেষ্ট আলো-হাওয়া খেলতে দিন। সুযোগ থাকলে সমুদ্রতীরে, ঝর্ণার কাছে চলে যান। শাওয়ারে স্নান করুন।
রক্তচাপ কমান
উচ্চ রক্তচাপ কমাতে চান? চাইলে কয়েকটি জিনিস করতে হবে।

  • নুন খাওয়া বন্ধ করুন। না পারলে নামমাত্র খান।
  • কফি বন্ধ করুন। না পারলে নামমাত্র খান।
  • তর্ক করলে চিৎকার করবেন না।
  • দিনে কুড়ি মিনিট ধ্যান করুন।
  • পটাসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খান যেমন-টক ফল, টমেটো, আলু, কলা।
  • মানসিক চাপ কমানোর চেষ্টা করুন।
  • ওজনের দিকে নজর দিন।
  • রসুন, অলিভ অয়েল, সামুদ্রিক মাছ, কাঁচা মরিচ, ব্রকলি নিয়মিত খান।
  • ধমপান ছাড়ূন। ড্রিঙ্ক করলে একেবারে কমিয়ে দিন।

 

Published : জুলাই ১০, ২০১৭ | 1067 Views

  • img1

  • জুলাই ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « জুন   আগষ্ট »
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • Helpline

    +880 1709962798