চিত্রা নদী বাঁধাঘাট ও মন্দির, নড়াইল

Published : এপ্রিল ১২, ২০১৭ | 3578 Views

নড়াইল বাঁধাঘাট

 

এসএম সুলতানের স্মৃতি বিজড়িত চিত্রানদীর পাড়ে নড়াইলের বাঁধাঘাট। হাজার বছরের পুরনো পূজাকেন্দ্র আজকের পাকা মন্দীর। ছাদ বাঁধানো ঘাট আর চিত্রাপারের অপরুপ সৌন্দর্য নিয়ে এক কথায় অন্যরকম এক সুন্দর স্থান বাঁধাঘাট।১৭৫৭ সালে ইংরেজ শাষন কায়েম হলে রায় পরিবারের জমিদারীর সূচনা হয়। এই  বংশের জমিদার রাম রতন রায়  চিত্রা নদীর ধারে এই বাধানো ঘাটটি প্রথম নির্মাণ করেন। জমিদার বাড়ীর নারীদের ধর্মীয় বিশেষ পর্বের স্নান এবং প্রতিমা বিসর্জনের জন্য এই ঘাটটি ব্যবহার করা হতো।  তাছাড়া জমিদারদের নৌযান-পথে চলাচলও সেসময় এই ঘাট দিয়েই হতো।

নড়াইলের ঐতিহ্য বাহী জমিদারদের বাঁধানো এই ঘাট। মুল ঘাট পুরনো হলেও এখানে পিলার দিয়ে তৈরী করা পাচা চাউনি আধুনিক কালের। তৎকালীন জমিদারদের নৌ-বিহারের জন্য ও নদীর তীরে বসে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগের জন্য ঘাটটি প্রতিষ্ঠা করেন । বিভিন্ন সময়ে এই ঘাটে কিছু সংস্কার কাজ করা হয়েছে। এর সঠিক নির্মাণকাল উল্লেখ নেই। তবে দলিল দস্তাবেজ বা পুরনো পত্রিকা খুঁজে এটা বের করা অসম্ভব কিছু নয়। নড়াইলের খুব নাম করা জায়গার ভেতর একটি জায়গা বাধাঘাট।

আজ থেকে প্রায় তিনশত বছর আগে রাজা সীতারামের নির্মিত ধর্মপীঠ নিশিনাথ তলায় প্রতি বৎসর বৈশাখী তিথিতে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়ে যে পূণ্যস্নান করে তা এই ঘাটেই হয়ে থাকে। হিন্দু ধর্মাম্বলীদের কাছে এটি একটি তীর্থস্থানও বটে।এস,এম সুলতানের অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে এখানেও। এর অবস্থান – রূপগঞ্জ, নড়াইল শহর, নড়াইল সদর । অনেকে একে পুরাতন জমিদার বাড়ির ঘাটও বলে থাকেন। নড়াইলের ঐতিহ্য বাহী জমিদারদের বাঁধানো ঘাট প্রতিদিন দর্শানার্থের ব্যাপক সমাগম হয়। পুজোর মৌসুমে হাজার হাজার হিন্দু পূন্যার্থীর পদভারে মুখরিত হয়ে যায় পুরো চিত্রা নদীর পাড়। তখন আলো ঝলমল হয়ে উঠে পুরো এলাকা। এখানে একটি মন্দিরও রয়েছে। নগরের মানুষ একটু হাফছেড়ে বাঁচতে এখানে আসে। ২০০৮ সালের মাঝামাঝি সময় স্থানীয় ব্যক্তিদের উদ্যেগে এই ঘাটটি সংস্কার করে আরো কিছু বছর টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। বর্তমানে পুরোনো মন্দিরটিকে দৃষ্টিনন্দন করে তৈরী করা হচ্ছে যা সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করতে সক্ষম হবে। এমন নান্দনিক স্থাপনা খুব বেশী নেই।

শিল্পী এসএম সুলতান ছাড়াও এখানে রয়েছে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ এর স্মৃতি বিজড়িত স্থান। নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কিংবদন্তীতুল্য অধিনায়ক মাশরাফির বাড়ি নড়াইলে।


পদ্মা নদী পাড়ি দিয়ে আসতে পারেন নড়াইলে। অন্যনান্য দর্শনীয় স্থান:

সুলতান কমপ্লেক্স, বাধাঘাট, নিরিবিলি পিকনিক স্পট, অরুনিমা ইকো পার্ক, চিত্রা রিসোর্ট, সীমাখালী, বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ নূর মোহাম্মদ শেখ কমপ্লেক্স,নুর মোহাম্মদনগর

ঢাকা থেকে সড়ক পথে আরিচা ফেরী পার হয়ে নড়াইল সদর । ঢাকা থেকে নড়াইল  যাওয়ার পথে সাভার স্বৃতিসৌধ, সাভার ক্যান্টনমেন্ট, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় , মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, যশোর, গোপালগঞ্জ জেলার বিভিন্ন দর্শণীয় স্থান চোখে পড়বে। খুলনা ও নড়াইল রুটের অনেক গাড়ী লঞ্চে যাত্রী পারাপার করে থাকে। লঞ্চে যাতায়াত করলে সময় ও অর্থ দুটোই কম লাগে।

-জাহাঙ্গীর আলম শোভন

 

Published : এপ্রিল ১২, ২০১৭ | 3578 Views

  • img1

  • এপ্রিল ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « মার্চ   মে »
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • Helpline

    +880 1709962798