আমার ই-কর্মাসের দিন গুলো – পর্ব : ০২

Published : ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭ | 1760 Views

আমার ই-কর্মাসের দিন গুলো – পর্ব : ০২
মো: নাজমুল হক
সময় খুব দ্রুত শেষ হয়ে যাচ্ছে । দেখতে দেখতে ৩টা বছর পার হতে চললো । না আমি এই ৩বছর না , এরও আগ থেকে অনলাইন শপিং , অনলাইন বেচাকেনার পোকাটা মাথায় ঘুরছে । সেটা এখনো মনে নি । এখনো খুব শক্ত অবস্থানেই আছে । আর সেই জন্যেই দেশী বিদেশী অনেক ব্লগই পড়া হয় । ই-কমার্স এবং কোম্পানী ব্যান্ডিং নিয়ে । না আমি খুব বেশী কাজ জানি না । আমি জানি কেবল পড়তে । আর পড়ার পর ওই বিষয়টা নিয়ে একটু চিন্তা করে নিজের জীবন নিজের স্বপ্নের সাথে তার একটা সাদৃশ্য ঘটাতে । মাথায় নতুন চিন্তা আসে । নতুন করে অনক কিছুই উকি দেয় । সব কিছু একটা নোট করে রেখেছি মাত্র । এখনো যাত্রাটা আরম্ভ করা হয়নি । করেছিলাম , এবং ভালৌই ছিলো । কিন্তু সেটা বেশী দুর পাড়ি দেওয়া হয় নি । এখন আপনি বলতে পারেন আমি ব্যার্থ । কিন্তু আমি বলবো না আমি সফল । কারণ সফলতা টা এক একজনের কাছে এক এক রকম । আর আমি মনে করি ব্যর্থ বলতে কিছুই নেই । আর যদিও থেকে থাকে সেটা হলো চেষ্টা না করা , পথ যাত্রা না দেওয়া । কিন্ত আমি সেটা করেছি । এই যাত্রা পথে যা শিখেছি তাই নিয়েই আপনাদের সাথে বকবক করছি এর বেশী কিছু না । প্রথমত যেটা শিখেছি সেটা হলো আপনি ততক্ষণ পর্যন্ত কোন বিষয় সর্ম্পকে পূর্ণ ধারণা পাবেন না , যতক্ষণ না ওই বিষয় নিয়ে পথ চলতে শুরু করবেন । একই সাথে আরেকটি কথা হলো আপনি ততক্ষণ পর্যন্ত সফলতা অর্জন করবেন না , যতক্ষণ না আপনি আপনার লক্ষ্য সম্র্পকে সু-নিশ্চিত জ্ঞান অর্জন করবেন না ।

পৃথিবীটা এখন আধুনিকতায় মোড়ানো। মানুষের রুচি, কথাবার্তা আর চালচলনে এসেছে বিপুল পরিবর্তন। শুধুমাত্র কিছু নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে নয়, পরিবর্তন এসেছে প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই। আর এই পরিবর্তনের বিরাট একটা অংশ এসেছে ইন্টারনেট নামক এক জাদুর কাঠিতে ভর করে। যোগাযোগ ব্যাবস্থা থেকে শুরু করে যেকোনো ক্ষেত্রেই বেড়েছে ইন্টারনেট সেই সাথে এটাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে কোটি কোটি ডলারের ইকমার্স ব্যবসা।

আর ওই সেক্টরে আপনি নিয়ে এসেছেন অল্প অর্থে একটি ওয়েব সাইট যেখান থেকৈ আপনি বেচা বিক্রয় করতে চাচ্ছেন !! ?
এই প্রশ্ন টি ;আপনার নয় আমার মনেও আসেছিলো । আমিও একটা সময় ছোট কোম্পানী বড় কোম্পানী এই সব নিয়ে ভাবতাম । কারণ তখন পর্যন্ত আমার কাছে ছোট বড় এই হিসাব টা অর্থের উপর নির্ভর করতো । ঠিক যখন যাত্রা শুরু করলাম । তখন বুঝতে পারলাম একটু কষ্ট করে পড়া লেখা করলে অনেকটা সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া যায় । হোক না শুরুটা একটু স্লো তাতে কি । হোক কোন ফুটপাত কিংবা নিজের বাসা থেকে । তাই বলেকি এক সময় বড় অফিসের মালিক হতে পারবো না এমনকি কোন বাধা নিষেধ আছে ? ব্যবসার সফলের প্রথম কয়েকটি ধাপের মধ্যে কয়েকটি হলো :
১. সঠিক প্ল্যান
২. কঠোর পরিশ্রম
৩. অর্থের সঠিক ব্যবহার ।
৪. সঠিক মার্কেটিং ( সঠিক স্থানে সঠিক বস্তু )

১. সঠিক প্ল্যান : এই বিষয়টা করতে হলে আপনাকে শিখতে হবে । জানতে হবে আপনার লক্ষ্য এবং স্বপ্ন সর্ম্পকে । কি করছেন , কেন করছেন , কার জন্য করছেন । এই বিষয় গুলো যখন আপনার কাছে নিশ্চিত হবে তখনই আপনি আপনার প্ল্যান মতো সামনের দিকে অগ্রসর হতে পারবেন ।তবে একটা বিষয় মনে রাখবেন , অন্যকে অনুসরন কিংবা অনুকরণ করে নয় , নিজেকে নিজের ভিতর লুকিয়ে থাকা প্রতিভাকে কাজে লাগাতে শিখুন । তাই বলবো নামার আগে এই সেক্টরটি সর্ম্পকে পড়ুন , জানুন , বুঝুন । যখনই বলি পুড়ুন । বিভিন্ন ব্লগ পড়ুন , তখন অনেকেই বলে ভাই কোন ব্লগ পড়বো । কি ভাবে পড়বো । তাদের জন্য বলবো আরে ভাই যে কাজটা গুগল আপনাকে ৫ সেকেন্ডে করে দিচ্ছে ওই কাজের জন্য অন্যের পিছে কেনই বা কাড়ি কাড়ি সময় নষ্ট করবেন । আর আপনি যদি গুগল এর ব্যবহার ই না জানেন তাহলে আপনি কিভাবে ই-কমার্স ব্যবসা করবেন । অনরঅইনে ব্যবসা করবেন আর অথচ অনলাইনের ব্যবহার জানবেন না , তা কি করে সম্ভব ? প্রাথমিক অবস্থা ই-ক্যাব গ্রুপ কিংবা ব্লগ এর লিখা গুলো পড়ুন । অনেকটা ধারণা যেয়ে যাবেন । তারপর বিদেশী কিচু ব্লগ আছে ও গুলো পড়ুন ।

২. কঠোর পরিশ্রম : প্ল্যান প্রোগরাম সবই ঠিক আছে কিন্তু সেটা বাসার একটা বন্ধী রুমের ভিতর । তা কি করে হবে । তাই আপনার স্বপ্ন পূরণের জন্য আপনাকে কঠোর পরিশ্রমী হতে হবে । আমাদের অনেকেই ভালো প্ল্যান করি কিন্তু তা বাস্তবায়নের জন্য সময় দেই না , কিংবা শ্রম দেই না তাহলে তো স্বপ্ন রসাতলে যাবেই । যাই হোক আপনি স্বপ্ন দেখুন তখনই যখন আপনার মনে হবে সেই স্বপ্নের পিছে আপনি সময় ব্যায় করতে পারবেন ।

৩. অর্থের সঠিক ব্যবহার : অর্থ ছাড়া দুনিয়া অচল এই কথাটার সাথে পুরোপুরি এক মত না হলে কিছুটা একমত । অর্থ মানে আপনার ব্যবসার ইনভেস্ট । এখন আপনি চিন্ত কের ঠিক করুন কিভাবে কি করবেন । ধরুন আপনার মার্কেটিং করতে হবে । এখন আপনি চাইল কোন মার্কেটার কে দিয়েও করাতে পারেন । কিংবা নিজেও করতে পারেন । তার জন্য একটু পড়তে হবে যে । অনেকেই আছে যে ছোট চোট কাজ গুলো লোক দিয়ে করায় তাতে করে টাকা ব্যায় হয় । প্রাথমিক অবস্থায় আপনি একটা ওয়েবসাইট করুন খুব অল্প টাকার মধ্যে । এই ভাবে প্রতিটা সেক্টরেই আপনি টাকা বাচিয়ে কাজ করতে পারেন । যদি আপনি ওই সেক্টর গুলো সর্ম্পকে একটু ধারণা রাখেন ।

৪. সঠিক মার্কেটি : আমরা অনেকেই বিভিন্ন গ্রুপ কিংবা পোষ্টের নিচে নিজেদের কোম্পানীর লিংক কমেন্টস করে থাকি । এই টা কি মার্কেটিং ? না ভাই এইটা মার্কেটিং না । এইটা স্প্যাম । যেকোন সময় ফেইসবুক আপনাকে রিমান্ডে দিতে পারে । কমেন্ট করা বন্ধ করে দিতে পারে আপনার তখন কি করবেন । সুতরাং বলবো এই কাজটা থেকে বিরত থাকুন । এই টা চোটলোকি কাজ ্ মনে রাখবেন । আপনি একজন ব্যবসায়ি আপনার আচরণ ঠিক একজন ব্যবসায়ীর মতো হতে হবে । যাতে করে আপনার সাথে কেউ কথা বলে খুশী হয় । যারা এই কাজটা করছেন তাদের বলবো । তার থেকে নিজের প্রোফাইল ব্যবহার করুন । যারা এই কাজ গুলৌ করছে তারা বেশীর ভাগই ভিন্ন নামে অন্য পিক দিয়ে তাদের আইডি ক্রিয়েকট করে এই কাজ গুলো করছেন । ভাই তার থেকে সুন্দর একটা মার্কেটিং এর কথা বলি । আপনি আজ একটা আইডি খুলুন যেখানে আপনার নিজের সম্পূর্ণ পরিচিতি দেওয়া আছে । এবং আপনার কাজ আপনার চিন্তা গুলো নিয়ে লিখুন এবং পোষ্ট করুন । দেখবেন একটা সময় আপনার অনেক বন্ধু হয়ে গেছে । যারা আপনার কাজ পছন্দ করছে । এবং তখন আপনি নিজের আইডি থেকে আপনার ব্যবসা নিয়ে পোষ্ট করুন , ততদিনে আপনার একটা পরিচিতি তৈরি হবে । সুতরাং অনেকেই আপনাকে বিশ্বাস করতে শুরু করবে । তখন আপনি যেই পোষ্ট করবেন দেখবেন ওখানে থেকে অনেক বন্ধুই আছে যারা আপনার ওয়েব সাইট ভিজিট করবে । এবং পচন্দ হলে কেনা কাটাও করবে । কারণ তাদের সাথে এপনার একটা পরিচিতি আছে । সুতরাং আপনাকে বিশ্বাস করাই যাই । যেহেতু ই-কর্মাস সম্পূর্ণ বিশ্বাস এর উপর নির্ভর করে । আপনাকে ব্যবসা চালিয়ে নিতে হলে কাস্টমারের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে । আর তা না হলে আরেকটি কাজ করতে পারেন । আপনার মতো আরো অনেক ব্যবসায়ী আছে তাদের সাথে একটা ভালো সর্ম্পক গড়ে তুলুন । এবং ১০/১৫ জনের একটা টিম করুন । একদিন এক জনের কোম্পানী নিয়ে সবার প্রোফাইল থেকে পোষ্ট করুন । দেখবেন আপনার মার্কেটিং হয়ে গেছে । যাই বলি না কেন সব শেষে একটি কথাই স্প্যামিং বন্ধ করে , নিজের প্রোফাইল ব্যবহার করতে শিখুন । স্প্যামিং কখনোই একটি কোম্পানী একটি ওয়ব সাইটের জন্য সুখ বয়ে আনে না । নিসন্দেহে এইটি আপনার ক্ষতি ডেকে আনে । এই ছিলো ফ্রীতে আপনার কোম্পানীর মার্কেটিং করার কিছু টিপস ।
পরবর্তী পোষ্টে একটি সফল ই-কমার্স ব্যান্ড বা কোম্পানী প্রতিষ্ঠিত করার উপায় নিয়ে আলোচনা করবেন ততক্ষণ পর্যন্ত ভালো থাকুন । আর আমিও জেন ভালো থাকি এই দোয়া করুন ।
সবার শেষে একটি কথা বলেই শেষ করি ।
যাই করি যাই বলি এটাই সত্য : ই-কমার্স অধ্যায়নং তপঃ ( অধ্যায়নই ই-কমার্সের তপস্যা)

আল্লাহ হাফেজ…….

Published : ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭ | 1760 Views

  • img1

  • ফেব্রুয়ারি ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « জানুয়ারি   মার্চ »
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • Helpline

    +880 1709962798