শষ্য শামল ফসল ভরা মাটির ঢালি খানি্

Published : জুলাই ২৯, ২০১৬ | 1216 Views

শষ্য শামল ফসল ভরা মাটির ঢালি খানি্

সিুন্দর ফুল সুন্দর ফল মিঠা নদীর পানি- খোদা তোমার মেহেরবানী/ এই শষ্যশ্যামল ফসলভরা মাটির ঢালিখানি খোদা তোমার মেহেরবানী। কবি নজরুলের বিখ্যাত গানটি মনে পড়তে পারে দিনাজপুরের দিগন্তজুড়ানো শষ্য শ্যামল ফসলের মাঠ দেখে। জমির পর জমি আলুখেত তাতে আলু তুলতে ব্যস্ত চাষী পরিবার। পরিবারের সব সদস্য হয়তোবা আজ মাঠে। কারণ জমিতে আজ সোনা উঠবে। সে ফসলে চাষী পরিবারের রিযিকের ফায়সালা তা তার কাছে সোনার চেয়েও দামী হয়ে থাকবে। এক নির্জণ দ্বীপে এক ‍বাক্স সোনার চেয়ে এক ঝুড়ি খাবারের মূল্যই বেশী হবে যেকোনো মানুষের কাছে। বীজতলা থেকে ধানের বীজ তোলা হচ্ছে জমিতে বোনা হবে বলে। এসব ফসলে শুধু কৃষকের জীবন জীবকিাই চলে না। আমরা যারা নগর জীবনের ইট বালু সিমেন্টর আদলে বসে মাটি না ছোঁয়ার শুচিবায়ুতে ভুগি তারাও বাজার থেকে সেই চাষীদের চাষ করা চাল ডাল আলু কিনে আনি, তারপর সেদ্ধ করার পর ভুলে যাই এসবরে সূত্রাসূত্র।

কখনো চোখের দিগন্তজুড়ে ভূট্টার খেত কখনো মূলার ফুল যেন বারওয়ারী দুয়ারে ক্যানভাসে আঁকা কোনো দূর গাঁয়ের কাল্পনিক ছবি। কিন্তু সেসব যখন চোখের সামনে উজ্জল তখন আর কল্পনাবিলাসের কি দাম ? আমি বরং মুখে পুরে দিই মুলাফুলের ডাঁটা। দারুন ঝাঁঝ ও মিস্টি স্বাদে ভরে যায় মুখ। না এ স্বপ্ন কিংবা কল্পনা নয় এ এক বাস্তবের মেলবন্ধন। মানুষ আর প্রকৃতি যেখনো মোহনা বানায় সেখানে তাদের বিনিময়ের এক আদিগন্ত খেলা চলে অবিরাম। হয়তো এভাবে মানুষে গাছে, মানুষে মাটিতে আর মানুষে প্রকৃতিতে এক অমোঘ বন্ধন রচনা করে পৃথিবীটা ঘুরে চলেছে দিনমান বেলা অবেলায়।

সোনালী ধান কেটে ঘরে ফেরা কৃষকের সারি সারি পা, রাস্তা ধার ধরে বামুন কলা গাছের বাগান। সারি সারি সাজানো আমের গাছ। সবই যেন কথা বলছে। ভাবুক মন কখনো হয়তো তাদের সাথে সংলাপে মেতে উঠে যখন একা চলি আপন মনে পিচঢালা পথের ধার দিয়ে।

Published : জুলাই ২৯, ২০১৬ | 1216 Views

  • img1

  • জুলাই ২০১৬
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « জুন   আগষ্ট »
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • Helpline

    +880 1709962798