ঘুম না আসলে কি করবেন?

Published : জুন ৮, ২০১৮ | 574 Views

Jahangir Alam Shovon

যখন ঘুম আসে না, কী করবেন

একজন মানুষ ১০ ঘণ্টাও ঘুমাতে পারে আবার কারো ৩ ঘণ্টা ঘুমালেও চলে। কতটা ঘুমের প্রয়োজন তা বের করার জন্য পর পর তিন দিন পর্যাপ্ত ঘুম দিন। তারপর দেখুন তিন দিনে কত ঘণ্টা ঘুমিয়েছন। সেটাকে গড় করলে একদিনের ঘুম বেরিয়ে আসবে। তবে অভ্যাস ও শরীরের প্রতি যত্ন নিয়ে আপনার গড় ঘুমকে কমাতে বাড়াতে পারেন। তবে ৫/৬ ঘণ্টার কম ঘুমের জন্য সময় না রাখাই ভালো। আর ৮ ঘণ্টার বেশিও হওয়া ঠিক নয়।
ঘুম খাবারের মতোই একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। খাবার না খেলে যেমন মানুষ বাঁচেনা তেমনি না ঘুমিয়েও মানুষ থাকতে পারে না। কিন্তু এই ঘুমটাই যখন আসতে চায় না অথবা ভালোভাবে ঘুমানো যায় না, তখন?

ভালো ঘুমের জন্য কয়েকটি টোটকা

ঘুম ততটুকুই হওয়া প্রয়োজন, যতটুকু হলে পরদিন সকালে ফ্রেশ লাগে, ভালো লাগে, তার চেয়ে বেশি নয়। বিছানায় অযথা সময় নষ্ট করা ঠিক হবে না। অনেকক্ষণ বিছানায় শুয়ে থাকলে হালকা হালকা ভাঙা ভাঙা ঘুম হয়, এটা ভালো না। প্রতিদিন সকালে একটি বিশেষ সময়ে ওঠার নিয়ম পালন করতে হবে। তাতে শরীরের ঘুমজাগা-চক্রটি ভালো থাকে। ভালো ঘুমের জন্য সাউন্ড প্রোটেকটেড রুম হলে ভালো হয়। বিশেষ করে যেখানে ওই ধরনের আওয়াজ পাওয়া যেতে পারে। অতি গরম কক্ষ ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। তেমনি অতি ঠান্ডা রুমও ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। এ জন্য প্রয়োজন দেশের আবহাওয়া নির্বিশেষে না ঠান্ডা না গরম রুম। খালি পেটে ঘুমানো উচিত না, কারণ খালি পেটে ঘুম ভালো হয় না। সে রকমভাবে ভরা পেটেও ঘুম আসে না। সবচেয়ে ভালো হচ্ছে ঘুমানোর এক ঘণ্টা আগে হালকা খাবার খেয়ে নেয়া। ঘরে মশা থাকলেও ঘুমের জন্য সমস্যা হতে পারে।

দীর্ঘমেয়াদি ঘুমের সমস্যায় যারা ভোগেন, স্লিপিং পিল তাদের জন্য মাঝে মাঝে ভালো কাজ করে। কিন্তু যারা প্রায় দিনই ঘুমের বড়ি খান তাদের জন্য ভালো কাজ করে না। তাই একে পরিহার করুন। ঘুম না আসলেও একটি নির্দিষ্ট সময়ে আলো নিভিয়ে ঘুমিয়ে পড়–ন। এভাবে কিছুদিন যাওয়ার পর দেখবেন ঠিক সে সময়ে ঘুম এসে গেছে। ঘুমানোর জন্য বিছানা পরিষ্কার হওয়া উচিত। প্রতিদিনের কাজ ঘুচিয়ে তারপর ঘুমাতে যান। নইলে কাজের টেনশানে ঘুম আসবে না।
বিকেলে কফি পান একেবারে নিষেধ। কফি ঘুমের ক্ষতি করে। অনেকে বলেন, তাদের ঘুমে কোনো সমস্যা হয় না, তাদের ক্ষেত্রেও ঘুমে অসুবিধা হয়। কিন্তু সেটা আস্তে আস্তে কাজ করে বিধায় তারা বুঝতে পারেন না। মদজাতীয় পানীয় সাময়িক ঘুম আনতে সাহায্য করে। কিন্তু ঘুমের প্রহর যত পার হতে থাকে অ্যালকোহল ঘুমের ততই অসুবিধা সৃষ্টি করে। উপরন্তু সকালে উঠে মাথাব্যথা তো আছেই। ধূমপান ত্যাগ করুন। ধুমপানে ঘুমের অসুবিধা হয়।
যারা ঘুম আসছে না বলে রেগে যান বা হতাশা বোধ করেন, তারা হাল ছাড়বেন না। ঘুম না আসার কারণ বের করুন এবং সমস্যার স্থায়ী সমাধান করুন। ঠান্ডা পানি পান করুন। তলপেটেও ঠান্ডা পানির ছোঁয়া দিতে পারেন। অনেক সময় বাইরে থেকে আসলে ঘামের অস্বস্তি ঘুমে বাধা সৃষ্টি করতে পারে। তাই গোসল করে ঘুমের বিছানায় যেতে পারেন।
যদি পার্টনারের সাথে ঘুমাতে হয় তা হলে ভালো বোঝাপড়া থাকা উচিত। এমন যদি হয় একজন আলোতে ঘুমাতে পারে না। আরেকজন আলো জ্বালিয়ে বই পড়া ছাড়া ঘুমাতে পারে না। তা হলে পারস্পরিক বোঝাপড়া আগেই ঠিক করে নেয়া উচিত।
অনেকে অলসতাহেতু মশারি না খাটিয়ে শুয়ে পড়েন পরে মশার কামড়ে রাতজেগে থাকেন। এ ধরনের অলসতা করবেন না। ২ মিনিট মশারি খাটিয়ে শোয়া মানে রাতভর আরামে থাকা। কেউ কেউ কাজ করতে করতে কখন ঘুমিয়ে পড়েন তা নিজেই টের পান না। অনেকে আবার পড়ার টেবিলে ঘুমিয়ে পড়েন। এ অভ্যাসটা থাকলে বদলে ফেলুন।
ঘুম আসার জন্য এমনভাবে শুয়ে পড়–ন যেন মনে হয় ঘুমিয়ে গেছেন। মনে করুন যে গভীর ঘুমে আছেন। সঠিকভাবে শুয়ে আস্তে আস্তে নিশ্বাস ভারী করুন। চিন্তা-ভাবনাগুলো হালকা করুন। মনে করুন, ঘুমিয়ে গেছেন। দেখবেন একসময় সত্যি ঘুমিয়ে পড়েছেন।
মনে মনে চোখ বন্ধ করে, রুমের আলো নিভিয়ে স্বাভাবিক তাপমাত্রা নিশ্চিত করে এবং শব্দ দূষণ থেকে দূরে থেকে একটা অনুশীলন করতে পারেন। আস্তে আস্তে মনে মনে এক থেকে গুনতে শুরু করুন। এতে যদি মনোযোগ অন্যদিকে চলে যায় যেতে দিন। তবে খারাপ কিছু মনে না করাই ভালো। তারপর ১০০ থেকে নিচের দিকে আসুন। অথবা মনে করুন একটা অন্ধকার ঘরে রয়েছেন এখানে একটি ব্ল্যাকবোর্ড আছে, আছে একটা সাদা চক। এখন কাজ হলো মনে মনে এই ব্ল্যাকবক্স বড় একটা বৃত্ত আঁকা তারপর সেই বৃত্তে ৯৯ সংখা লিখুন। সেটাও মনে মনে আস্তে আস্তে। তারপর আস্তে আস্তে এবং মনে মনে এই বৃত্তটি চক দিয়ে একদিক থেকে ভরাট করতে থাকুন। এই দৃশ্য কল্পনা করতে করতে কারো একসময় ঘুম এসে যাবে।
যদি কোনো কিছুতে কাজ না হয় টোটকা বাদ দিয়ে কারো ডাক্তারের কাছে যান।

 

সূত্র: জাহাঙ্গীর আলম শোভনের ‘‘নিজেকে গড়ে তুলতে’’ বই থেকে নেয়া। বইটি কিতে হলে ফোন করুন রকামরী ডট কম ১৬২৯৭ নাম্বারে। অথবা ভিজিট করুন- https://www.rokomari.com/book/160997/nijeke-ghore-tulte?ref=null

Published : জুন ৮, ২০১৮ | 574 Views

  • img1

  • জুন ২০১৮
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « মে   জুলাই »
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • Helpline

    +880 1709962798