বনিকের সেবা

Published : অক্টোবর ২, ২০১৭ | 530 Views

বনিক কল সেন্টার স্ক্রিপ্টিং

: হ্যালো

: আসসালামু আলাইকুম। স্যার কোথা থেকে বলছেন?

: ওয়ালাইকুম আস সালাম। আমি মিরপুর থেকে বলছি।

: স্যার আপনার নামটা বলবেন? প্লিজ

: জি আমি তুষার মাহমুদ। আমি আপনাদের বনিক এর ব্যাপারে জানতে চাচ্ছি।

: জি, স্যার। এটা হলো একটা কো-ওয়ার্কিং স্পেস। এখানে আপনি বিভিন্ন অফিসিয়াল ডেস্ক ভাড়া নিয়ে কাজ করতে পারবেন। মানে আপনি আপনার ব্যবসায় বা পেশাগত কাজের জন্য আমাদের সেবা নিতে পারেন। আপনি চাইলে এসে ভিজিট করতে পারেন।

: আমি ঠিক বুঝতে পারছিনা আপনারা কি অফিস ভাড়া দিবেন নাকি চেয়ার টেবিল ভাড়া দেবেন?

: স্যার এটা কো-ওয়ার্কিং স্পেস। এখানে আপনি মূলত আ্ওয়ার এবং স্কোপ ভাড়া পাবেন। আপনি যদি আমাদের হট ডেস্ক নেন তাহলে আপনি যেকোনো একটি ডেস্কে বসে কাজ করার সুযোগ পাবেন। আর যদি আপনি ডেডিকেটেড ডেস্ক নেন তাহলে অবশ্যই আপনি একটি নিজস্ব ডেস্ক পাবেন যেখানে বসে আপনি যখন খুশি কাজ করতে পারেন। আর যদি আপনি প্রাইভেট অফিস নেন তাহলে আমাদের অফিসের ভেতরেই আপনি একটা অংশ পাবেন। এটা কিছুটা অফিস শেয়ারের মতই। তবে আপনি এ্র বাইরেও কনফারেন্স রুম, মিটিং রুম, হলরুম, স্টুডিও, কপিশপ, হ্যাং আউট জোন এসব ব্যবহার করতে পারবেন অন্যদের সাথে। স্যার আপনাকে চায়ের দাওয়াত। আপনি নিজে দেখে যেতে পারেন।

: তাহলে হট ডেস্ক আর ডেডিকেডেট ডেস্ক এর মধ্যে পার্থক্য কি?

স্যার হটডেস্ক হলো সাধারণ ডেস্ক। যেমন ধরুন ৩০ টি ডেস্ক এর মধ্যে হট ডেস্ক ব্যবহারকারীরা খালি থাকা সত্বে যে যেখানে পারে বসে ঘন্টা হিসেবে কাজ করবে। আর ডেডিকেটেড ডেস্ক হলো সে ডেস্কটি আপনার জন্য সংরক্ষিত থাকবে আপনি যখনি আসেন সেখানে বসে কাজ করবেন। আপনি আসলে বা আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করলে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন।

: কিন্তু আমি নিজেইতো একটা অফিস নিয়ে নিজের মতো ব্যবসায় বানিজ্য করতে পারি। আপনাদের এই ভাগাভাগির অফিস নেয়ার কি দরকার।

: জি স্যার অবশ্যই পারেন। সবাইতো নিজেরা অফিস নিয়েই ব্যবসা করে। কিন্তু কো-ওয়ার্কিং অফিসের চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে নতুন ও ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য এটা বেশ ভালো। কারণ আপনি একটা অফিস ভাড়া নিলে অফিসের ভাড়া থেকে শুরু করে যাবতীয় বিল, নেট বিল, পিয়ন, গার্ড ও রিসিপশনিষ্ট এর বেতন ইত্যাদি মিলিয়ে খরচের চাপ বেড়ে যাবে। কিন্তু কো-ওয়ার্কিং স্পেস নিলে আপনার এক খরচে সব হয়ে যাবে। কারণ এই খরচ গুলো তখন ২০/৩০ জনের ভাগে চলে যায়। স্যার আপনি ই-মেইল এড্রেস দিলে আপনি বিস্তারিত আপনার মেইলে পাঠিয়ে দিতে পারি।

: তাহলে আমার কাছে কোনো গেষ্ট আসলে কি করবো? মিটিং কি ডেস্কে বসে করা যাবে।

: জিনা স্যার ডেস্কে বসে মিটিং করা যাবেনা কারণ এক ডেস্কে একটা মাত্র সিট থাকবে। সেক্ষেত্রে আমাদের মিটিং রুম রয়েছে। যেখানে ৪/৫ জনের সাথে আপনি মিটিং করতে পারেন। এছাড়া কনফারেন্স রুমও রয়েছে আলাদা। আমাদের এখানে স্যার কিছু বাড়তি সুবিধাও রয়েছে যেমন রেকডিং ও ফটো স্টুডিও, হ্যাং আউট জোন এবং আমাদের সেমিনার ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে সুবিধা। আপনি কি আসবেন? আমি কি স্যার আপনার সাথে আমাদের স্যারের একটা এপয়ন্টমেন্ট সেট করবো।

 

: মেরুল বাড্ডার দিকে লোকেশনটা কেমন হয়ে গেলনা?

: স্যার এটা মেরুল বাড্ডা একেবারে মেইন রোডে। ইষ্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি থেকে কাছে এবং এর পাশেই তৈরী হচ্ছে ব্রাক ইউনিভাসিটির ক্যাম্পাস। হাতিরঝিল থেকে পায়ে হাঁটা পথ আর এই ভবনের আট তলায় রয়েছে গুলশান থানার নির্বাচন কমিশন অফিস। যেখানে ন্যাশনাল আইডি কাডের সব কাজ করা যায়। এর সামনেই রয়েছে সানজি নামে একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট। লোকেশনটি খুব ভালো এবং এখানে হাতিরঝিলের যে ইউলুপ তৈরী হচ্ছে এটা হয়ে গেলে জায়গাটা মোটামোটি আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে।

 

: একটা ডেস্কের ভাড়া যদি ৬৫০০ টাকা আর ডেডিকেডেট ডেস্কের ভাড়া যদি ৯৫০০ টাকা হয় একটু বেশী হয়ে গেল মনে হচ্ছে।

স্যার সুবিধার কথা চিন্তা করলে মনে হয় ভাড়া বেশী নয়। তাছাড়া আপনি দশ হাজার টাকার মধ্যে একটি ভালো মানের অফিসে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধাসহ কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন। যেটা আপনি নিজে বা কেউ এককভাবে অফিস নিয়ে করলে সম্ভব ছিলো না। তাছাড়া আপনি একটা কাজের পরিবেশও পাচ্ছেন। আপনি নিজে যদি আপনার অফিসে কপিশপ, হ্যাং আউট জোন, মিটিং রুম ইত্যাদি পেতে চান তাহলে নিশ্চই অনেক টাকা গুনতে হবে।

: আপনাদের বনিকে বা আপনাদের অফিসে ডেস্ক নিলে কি আমি আপনাদের কাছ থেকে কোনো ব্যবসা বানিজ্যের সুবিধা পাবো?

: আমরা আমাদের সকল ক্লায়েন্ট এর জন্য ব্যবসায় বাজিন্যের মানে কাজ করার সুবিধা দিচ্ছি। আমরা আপনাকে লজিস্টিক সুবিধা দিচ্ছি আপনি চাইলে নিজের ব্যবসায় নিজে উন্নত করতে পারেন। ব্যবসা বা আপনাকে সেল করে কিংবা কাষ্টমার দেয়ার ব্যাপারে আমরা কোনো হেল্প করতে পারবনা। কিন্তু একটা জায়গায় অনেক লোক কাজ করলে নিজেদের মধ্যে অনেক সেবা আদান প্রদান করা যায় এবং একজন আরেকজনের কাস্টমার হতেই পারেন।

: আপনাদের এখানে অফিস নিলে কি আমি সে ঠিকানায় ট্রেড লাইসেন্স নিতে পারব?

: জি স্যার,  এই অফিস স্পেস আমাদের নিজস্ব এটা ভাড়ায় নেয়া নয়। আপনি চাইলে আমাদের ডেডেকেটেড ডেস্ক বা প্রাইভেট অফিস প্যাকেজ নিলে এবং কমপক্ষে ১ বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হলে আপনি আমাদের ঠিকানায় ট্রেড লাইসেন্স করতে পারেন। এছাড়া আপনি আলাদা ফি দিয়েও এই সুবিধা নিতে পারেন।

: অফিসে ভিজিটর আসলে তারা আমার অফিস কিভাবে চিনবে। আর অফিসে প্রবেশ করলে তারা কিভাবে বুঝবে যে এটা আমার অফিস?

আপনার ভিজিটর অবশ্যই আসতে পারবে। সেক্ষেত্রে আপনি যদি আপনার ডেস্কের পাশে বসাতে চান তাহলে আরেকটা ডেস্ক নিতে হবে। আপনি যদি মিটিং রুমে বসাতে চান তাহলে আগে থেকে মিটিং রুম বুক করে রাখতে হবে। এছাড়া ভিজিটর অফিস আসলে চেনার জন্য অফিসের গেটে নেমপ্লেট লাগানোর সুবিধা রয়েছে। আপনি সে সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন। আপনার অফিসিয়াল ডকুমেন্টে এই ঠিকানা ব্যবহার করতে পারেন।

 

: এখানে কি ধরনের ওয়ার্কশপ হবে?

এখানে যে ধরনের ওয়ার্কশপ আপনাদের কাজে লাগবে বা আপনারা চান সে ধরনের ওয়ার্কশপ হবে। এগুলোতে বনিক এর মেম্বারদের জন্য বিশেষ চাড় এর ব্যবস্থা রয়েছে। যেমন ধরুন ব্যবসায় বা চাকুরির প্রস্তুতি, ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি। এছাড়া মাঝে মধ্যে ব্যবসায়িক আড্ডার ব্যবস্থাও থাকবে।

:কিভাবে আমি বনিকের মেম্বার হবো?

: আপনি নুন্যতম ২০০০ টাকা মূল্যের কোনো পেমেন্ট দিলেই আপনি বনিকের সাধারণ মেম্বার হিসেবে বিবেচিত হবে।

 

: এখানে একজনের কাস্টমার যদি আরেকজন নিয়ে যায় তাহলে আপনারা কি করবেন?

: স্যার এখানে এরকম কোনো সুযোগ নেই। কারণ আপনি আপনার ক্লায়েন্ট এর সাথে মিটিং রুমে কথা বলবেন এক্ষেত্রে আপনার ক্লায়েন্টদের সাথে অন্যদের পরিচিত হওয়ার সুযোগ নেই।

 

: এখানে কেউ কোনো অন্যায় অপরাধ বা কাস্টমারের সাথে করলে আপনারা সেটা কিভাবে সামাল দেবেন?

: প্রথমত আমরা রেফারেন্স ছাড়া কাউকে সেবা দেবনা। দ্বিতীয়ত আমাদের সার্ভার যেহেতু ব্যবহুত হবে সেক্ষেত্রে আমাদের কিছু টেকনিক্যাল নিরাপত্তা রয়েছে। কিছু নজরদারীও থাকবে। এরপরও কোনো সমস্যা হলে আমরা আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর স্মরণাপন্ন হবো এবং এতে করে অন্য ক্লায়েন্টদের কোনো সমস্যা হবেনা।

আমরা কোনো বিতর্কিত ব্যবসায় বা ব্যবসায়ীকে সেবা দেবনা। আমাদের অফিসে প্রতারণা সংক্রান্ত নির্দেশিকা আমরা শো করবো। যাতে বাইরের কোনো মানুষ এসে না বুঝে কারো সাথে কোনো অর্থ লেনদেন না করে।

আর কি কি সুবিধা রয়েছে?

এখানে বিভিন্ন ধরনের প্যাকেজ ছাড়াও রয়েছে হ্যাং আউট জোন, কারো কাছে কাজের ফাঁকে একটু বিশ্রাম প্রয়োজন হলে তিনি এটা ব্যবহার করতে পারেন। রয়েছে স্টুডিও, মিটিং রুম, কনফারেন্স রুম ও ছটির দিনের জন্য হল রুম। এছাড়া থাকবে ছোট একটি লাইব্র্ররী, কফিশপ ও ট্রেড লাইসেন্স করার সুবিধা। থাকবে লকার সুবিধা এবং প্রিন্টিং সেবা ও আইটি সেবা। প্রিন্টিং সেবার মধ্যে রয়েছে ডিজাইন ও প্রিন্টিং এর যাবতীয় কাজ করানোর সুযোগ। আইসিটি সেবার মধ্যে রয়েছে ওয়েবসাইট ও সফটওয়ার তৈরী এবং ডিজিটাল মার্কেটিং ও অন্যান্য সেবা।

 

Published : অক্টোবর ২, ২০১৭ | 530 Views

  • img1

  • অক্টোবর ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « সেপ্টেম্বর   নভেম্বর »
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • Helpline

    +880 1709962798