দৈনিন্দিন জীবনকে সহজ করার টিপস

Published : আগস্ট ২৮, ২০১৭ | 998 Views

দৈনিন্দিন জীবনকে সহজ করার টিপস

নিত্য প্রয়োজনের বাইরে থাকে আমাদের কিছু সমস্যা কিছু চাহিদা সেগুলোর জন্য রয়েছে কিছু সমাধান বা ব্যবস্থা। কখনো কখনো একটু বুদ্ধি খাটিয়ে সেসবকে আরো সহজ করে নিতে পারি আমরা। আসুন চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক সেসবের উপর।

১. টুথপেস্টের অনেক গুন

দাঁত পরিষ্কার ছাড়াও টুথপেস্ট আরো কিছু কাজে লাগে। রূপার গয়নার উপর জমে থাকা ময়লার প্রলেপ সরাতে সাহায্য করে। মুখের ব্রণের উপর রাতে একটু টুথপেস্টের প্রলেপ লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়বেন। সকালে উঠে দেখবেন ব্রণ কমে গেছে।  পোকামাকড়ের কামড়ে কিংবা আগুনে পুড়লে এটি অ্যান্টিসেপ্টিকের মতো কাজ করে। কাপড়ের দাগ বিশেষ করে বলপেনের কালি লাগলে তার উপর সাদা টুথপেস্টের পরত লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন। দাগ চলে যাবে। সাদা কেডস্‌ বা জুতা আরও সাদা করতে টুথপেস্টের ব্যবহার কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

২, কাপড়ে যেন দাগ না পড়ে

কাপড়ে দাগ লাগলেই সঙ্গে সঙ্গে পানি দিয়ে ধুয়ে র সাবান, ডিটারজেন্ট ব্যবহার করুন। সুতি কাপড়ের দাগ তুলতে কাপড় কাচার সোডা, ক্লোরিন ব্যবহার করতে পারেন। কাপড়ে তেলজাতীয় দাগ লাগলে সেখানে ডিটারজেন্ট পাউডার বা লেবুর রস দিয়ে রাখুন। পরে ধুয়ে ফেলুন। রক্তের দাগ লাগলে আমরা অনেক সময় গরম পানি ব্যবহার করি। এতে দাগ স্থায়ী হয়।  কাপড়ে চায়ের দাগ বা অন্য কোনো দাগ লাগলে তরল দুধ দিয়ে ধুয়ে ফেললেও দাগ উঠে যাবে। যদি এক কাপড়ের রং আরেক কাপড়ে লেগে যায়, তাহলে প্রথমে শুধু পানিতে চার-পাঁচ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। এরপর দাগটা হালকা হয়ে এলে সাবান, ডিটারজেন্ট ব্যবহার করুন।
৩. রং ঠিক রেখে কাপড় ধোয়া

আপনার ওয়াশিং মেশিনে রঙিন কাপড় ধোয়ার সময় ডিটারজেন্ট এর সাথে এক কাপ ভিনেগার দিয়ে দিন। ভিনেগার ডিটারজেন্টের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে কাপড়কে রক্ষা করে । নতুন সুতি কাপড় প্রথম বার ধোয়ার আগে এক বালতি পানিতে আধা কাপ লবণ মিশিয়ে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন তারপর ডিটারজেন্ট বা সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন কাপড়ের রঙ নষ্ট হয়নি। ওয়াশিং মেশিনে বা এক বালতি পানিতে আধা কাপ বেকিংসোডা দিয়ে দিন। কাপড়ের রঙ ঠিক থাকবে।

৪। গয়নাকে রাখুন নতুনের মত

পানিতে ক্ষারহীন সাবান গুলিয়ে নরম কাপড় ভিজিয়ে গয়না পরিষ্কার করে নিতে পারেন।  কেমিক্যাল, অ্যালকোহল, ক্রিম এবং পারফিউম থেকে গয়না দূরে রাখতে চেষ্টা করুন। গয়না পরার আগে সুগন্ধি ব্যবহার করুন। পরে লাগালে পারফিউম গয়নার রং নষ্ট করে দিতে পারে।  ওয়াশিং পাউডারের সঙ্গে কয়লা মিশিয়ে রুপার গয়না পরিষ্কার করা যেতে পারে।  গরম পানিতে বেইকিং সোডা ও ফয়েল পেপারের টুকরা মিশিয়ে গয়না পরিষ্কার করা যায়  টুথপেষ্টকে পুরনো টুথব্রাশে লাগিয়ে গয়নার ফেলা তুলে ঘষে নিন। ২/১ মিনিটের মধ্যেই ফল পাবেন। খুব স্যাঁতে স্যাতে জায়গায় গয়না রাখা ঠিক নয়। গয়না যেখানেই রাখুন কিছু দিন পর পর চেক করে নেয়া উচিত।

৫. তেজপাতারও আছে গুণ

একটি ছাইদানিতে কয়েকটি তেজপাতা নিয়ে ১০ মিনিট ধরে পোড়ান। ধীরে ধীরে দেখবেন ঘরে সুগন্ধ ছড়াচ্ছে। ফলে গন্ধ মনকে সজীব করে দেবে। এটি মন ও শরীরকে প্রশমিত করতে সাহায্য করবে। এতে মানসিক চাপ ও উদ্বেগ কমবে। এ ছাড়াও তেজপাতায় আপনি পাবেন অ্যান্টিসেপটিক, ডিওরেটিক, স্যাডেটিভ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান। এগুলো স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তেজপাতার এসেনশিয়াল অয়েল দিয়ে ম্যাসাজ করলে, মাথাব্যথা কমে।

এমন আরো কিছু নতুন তথ্য নিয়ে হাজির হবো।

Published : আগস্ট ২৮, ২০১৭ | 998 Views

  • img1

  • Helpline

    +880 1709962798