ঝালকাঠির চায়না কবর রহস্য?

Published : এপ্রিল ২, ২০১৭ | 2319 Views

চায়না কবর

নলছিটির চায়না কবরের পরিচয় জানে না কেউ

একসময় নৌপথে বরিশালে আসতেন নানা দেশের ব্যবসায়িরা। নলছিটিতে লবণ ও সুপারীর ব্যবসায়ের সাথে জড়িত বিদেশীরা ভিড় করতো। এখানে চায়না ব্যবসায়ীদের প্রচুর আনা গোনা ছিলো। তারা চিনদেশে থেকে বিভিন্ন পন্যে এনে এখানে বিক্রি করতো। আর লবণ ও সুপারী নিয়ে ফিরতো। তাই নলছিটির পুরনো বাজারকে চায়না বাজার বলে। এই চায়ণা বাজার এখন নেই। কিন্তু চায়না ব্যবসায়ীর স্মৃতি হিসেবে রয়েছে একটি কবর। এই কবরটি একজন চায়না ব্যবসায়ীর এছাড়া আর কোনো তথ্য জানে না স্থানীয় লোকেরা। তিনি কখন এসেছেন কেন কি কারণে মারা গেছেন? তিন কোন ধর্ম পালন করতেন েএগুলো কিছুই জানা নেই মানুষের। তারা শুধু জানেন এটা একজন চীনা ব্যবসায়ার কবর। আনুমানিক ৭ ফুঠ লম্বা কবরটি আয়তাকার নয়। এর কোণাগুলো গোলানো।

১৮৭৫ সালে নলছিটি পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে পৌরসভার আয়তন ছিল ০.৫০ বর্গ মাইল (২.৯০ বর্গ কিলোমিটার)। ৯ জন নির্বাচিত পৌর সদস্য ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক পৌরসভা পরিচালিত হত

এমনিতে ঘূর্ণিঝড়, বন্যা বিভিন্নকারণে এই অঞ্ছলে খুববেশী পুরনো স্থাপত্য কিংবা ঐতিহাসিক নির্দশন অবশিষ্ট নেই।তারউপর কিছু ব্যতিক্রমী স্থাপনাকে ছোট ও পুরনো নয় বলে অবহেলা করা হয় তাহলে ভবিষ্যতে হয়তো আর তেমন কিছুই থাকবেনা। তাই সরকার প্রত্নতত্ব দপ্তর বা কোনো স্বাধীন গবেষক কিংবা বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ এর ইতিহাস বের করতে পারে।

প্রায় সময় এখানে লোকজন বসে থাকে। রিকসা  ট্যাম্পু এর উপর উঠে যায়। অন্যকোনো দেশের ক্ষেত্রে হলে হয়তো সেদেশের দূতাবাস খোঁজখবর নিত বা দেখভালের ব্যবস্থা করতো। কিন্তু কমিউনিজমে বিশ্বাসে চীন দেশে যেখানকার প্রায় ১৬ ভাগ মানুষ বতর্তমান ধর্মহীন। তাদের কাছে পরকালের যেমন কোনো মূল্য নেই। তেমনি একটি কবরও মূল্যহীন। কিন্তু এই কবরের সাথে চীনে দেশ ও বৃহতত্তর বরিশালের ব্যবসায়িক নানা ঘটনা জড়িয়ে থাকতে পারে। চেষ্টা করলে হয়তো এগুলো বেরিয়ে আসবে।

নলছিটি পৌরসভার কাছে  চায়না কবর  সব সময় নোংরা অবস্থায় পড়ে থাকে প্রশাসন বা কোন ব্যাক্তি এটার সংস্কারের কাজ করে না । অথচ এটিই নলছিটির ঐতিহ্যের সাথে মিলে মিশে আছে । রাস্তার পাশে এই কবরটির আশপাশে ময়লা ফেলা হয়। পুরনো দলিল দস্তাবেজ ঘাটলে হয়তো এই ব্যবসায়ীর পরিচয় জানা যাবে। কিন্তু আজ অবধি কেউ সে চেষ্টা করেনি। ফলে ইতিহাস অজানা থেকে গেল।

Published : এপ্রিল ২, ২০১৭ | 2319 Views

  • img1

  • এপ্রিল ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « মার্চ   মে »
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • Helpline

    +880 1709962798