আমার ই-কর্মাসের দিনগুলো

Published : ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৭ | 1071 Views

আমার ই-কর্মাসের দিন গুলো … পর্ব ১

মো: নাজমুল হক
প্রথমত ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি আমি টাইটেল ছাড়া কিছু লিখতে গেলে লেখা বট গাছের ন্যায় শাখা প্রশাখা ছড়াতে থাকে । তাই একটা টাইটেল দিলাম । আর হয়তো অনেকেই টাইটেলের সাথে লেখার মিল পাবেন না । তাই ক্ষমা চেয়ে নিলাম আগেই । তাছাড়া আমি কোন বড় ধরণের ব্যবসায়ি নই । যে গাধায় গাধায় জ্ঞানের বাণী শুনাবো । কিংবা আমি কোন ইউনিভার্সিটি থেকেও পাশ করে আসি নি , ই-কমার্সের উপর । কোন কোর্স ও নেই । নিজের চলার পথে যা পেয়েছি , যা দেখেছি ওটাই ছিলো আমার শেখা , কিংবা জানা, প্রথম দিকে পড়তাম লিখতাম গ্রুপে অনেকটা এ্যকটিভ থাকলে ও এখন পড়ে যাই , লেখার সময় তেমন পাই না । তাই লেখা হয় না । ।প্রথম দিকেই কিছু কথা শুনিয়ে দিলাম । মাপ করবেন কাউকে ছোট বা হেও করা উদ্দেশ্য নয় ।

বেশ কিছু দিন আগে একটা পোষ্টে লিখেছিলাম , আবেগে প্রেম ভালোবাসা হয় , ব্যবসা নয় । আর একই ধরণের কথা রাজীব ভাই বলেছেন , প্রথম দর্শনে প্রেম হয় , ব্যবসা নয় । যাই হোক প্রায় শুনি এই ই-কামর্স ব্যবসায়ী তার ব্যবসা বন্ধ করে দিয়েছে । ওর লস হচ্ছে । আবার আমরা কেউ কেউ পোষ্টাই যে সেক্টর টাকে ধংস করে দিচ্ছে কিছু ছোট কোম্পানী । কথা গুলোর সাথে কেন জানি একম হতে পারি না । এর কিছু কারণ দেওয়া হলো ।

প্রথম কারণ : পাট ব্যবসায়ী , ধান ব্যবসায়ী , জমি ব্যবসায়ী , ই-কামর্স ব্যবসায়ী । এরা সবাই ব্যবসায়ী । কেন জানিনা , পৃথিবীর প্রথম দিক থেকেই কোন ব্যাবসায়ী ব্যবসা থেকে ছিটকে জান নাই । আপনি হয়তো একমত হবে না । আসলে আপনি যাকে ব্যবসায়ী বলছেন সে কতটুকু ব্যবসা সর্ম্পকে জানে , কিংবা করতে চায় । কয়েকটা পণ্য চক থেকে কিনে এনে ফেইসবুক পেইজে দিয়ে দিলেই ব্যবসায়ী হয়ে যায় । ব্যবসায়ী যদি কখনো তার ব্যবসায় লোকসান ও হয় , তাহলে সে তার ব্যবসা পরিধি ছোট করে হলেও ব্যবসাই করবে । আবার ও সেই একই কথা । আবেগ কিংবা অন্যের দেখে ব্যবসা হয় না । তার জন্য জ্ঞানের দরকার পড়ে । সেটা আপনি যেভঅবেই অর্জন করেন । চোখের দেখা অনেক লোক আছে যারা একটা সময় অনেক বড় ব্যবসায়ী ছিলেন কিন্তু একটা ভুল কিংবা যাই হোক না কেন , তাদের ব্যবসায় লোকসান হয় , আজ দীর্ঘ সময় অবধী তারা তাদের সেই প্রচেষ্ট ধরে রেখেছে । হযতো কেই পার্টনার কিংবা আবার কেউ ছোট পরিসরে । সে যাই হোক । কিন্তু ব্যবসা ছেড়ে পালিয়ে যায় নাই । কেউবা নিজেকে সাময়িক সময় সাপোর্ট দেওয়ার জন্য পাশাপাশি একটা চাকুরী জুটিয়ে নিয়েছেন একই সাথে চালিয়ে যাচ্ছেন তার ব্যবসা ও , হয়তো প্ল্যান করছেন , কিংবা অল্প করে মার্কেটিং । যাই হোক দীর্ঘ ৭ বছরের অভিজ্ঞতায় ব্যবসায়ী বলতে যাদের নির্বাচন করেছি , তারা হারিয়ে যায় না । এই বাক্যটার সাথে পরিচিত হয়েছি । আপনি ধান ব্যবসা পারছেন না , পাট ব্যবসা করেন । কিন্তু ঘুরে ফিরে ব্যবসাই করছে ।

দ্বিতীয় কারণ : ছোট কোম্পানী , কে ছোট কোম্পানী ? কারা ছোট কোম্পানী ?ভাই প্রতিটা সেক্টরই চোট থেকে বড় । সেটা ঢাক ডোল পিটিয়ে বলতে হবে না । কারণ তার প্রমাণ এই ই-ক্যাব । এই সেক্টর টি আমাদের কাছে সম্পূর্ণ নতুন । প্রতিটা নতুনের দিকেই মানুষের একটা জোক থাকে । কিন্তু যারা একটু বুঝে করতে পারেন , তারা টিকে যায় । আর যারা না বুঝেই হুজোগে নামে তারা জরে যায় । কিন্তু ভাবে তারা মার্কেট নষ্ট করে এই প্রশ্নের উত্তরে উঠে এসেছে , খারাপ পণ্য বিক্রয় , খারাপ সেবা এই সবের কারণে । হ্যাঁ আপনাদের সাথে কিছুটা সময়ের জন্য একমত , যে তারা মার্কেট নষ্ট করছে । কিন্তু ভাই বড় বড় মার্কেটেও রেপ্লিকা পণ্য বিক্রয় হয় । তাছাড়া আপনি এই খানে ক্ষতির দিকটাই দেখলেন ? এখনে অনেক বড় লাভ ও আছে । ধরুন আপনি ঘড়ি বিক্রয় করেন । সেই সাথে আপনার পাশের দোকানেও ঘড়ি বিক্রয় হয় । তারা রেপ্লিকা বিক্রয় কর আর আপনি অরজিনাল তাইবলে আপনার কাস্টমার নষ্ট হবে ? না ভাই বরং আপনার নাম ছড়াবে । একটু ভালো করে দেখলেই দেখবেন যে প্রতিটা বস্তুই আরেকটা বস্তুর উপর নির্ভর করে উপরে উঠে । আর তখন আপনি যেমন বলতে পারবেন , ঠিক তেমনি আপনার কাষ্টমারও বলবে , যে আপনি ভালো পণ্য সেল করেন । এইটা আপনার মার্কেটিং এর জন্য ভালো । তাছাড়া যেহেতু এই সেক্টরটা এখনো অনেক নতুন । তাই ওই ছোট ব্যবসায়ীর জন্যে হলেও একজন নতুন লোক অনলাইনে কেনার বিষয়টি জানতে পারছে । বিষয়টাকে আমি লাভের চোখেই দেখি । গ্রামে একটা প্রবাদ আছে যে যতটুকু পানিতে নামবে তার কাপড় ততটুকুই ভিজবে । আপনার পণ্য , এবং কাস্টমার সন্তুটির উপর আপনার ব্যবাস । এই গ্রুপে প্রায় প্রথম দিক থেকৈই আছি ইফতি আপুর Jamdani Ville এবং লিটন ভাইয়ের CoxsbazarShop.com এই দুটো কোম্পানীকে সেই চোট থেকেই দেখে আসছি । দেখেছি , ইফতি আপুর পরিশ্রম , তার চেষ্টা । অনেকেই তো জামদানি বিক্রয় করে । কিন্তু দিন শেষে কয়জন বলতে পারে আমি একটু হলেও সফল হয়েছি । যা বর্তমানে আপু বলছে । ওনার প্রতিটা পোষ্ট লক্ষ্য করি একটু ভালৌ ভাবে । আসলে আমাদের চেষ্টা , সঠিক পরিকল্পনা ,থাকলে অনেক কিছুই সম্ভব । একদিন এই কোম্পানী গুলোই বড় হবে । সবাইকেই ছোট হতে হয় । না হলে বড় হওয়া যায় না ।

তৃতীয় কারণ : ক্রেতার থেকে বিক্রেতা বেশী । এই কথাটির সাথে কোন ভাবেই একম না আমি কারণ ঢাকার শহর কোটি মানুষের বাস । সেই সাথে মার্কেট দোকান এর পরিমাণ টা ও কিন্তু কম নয় । আমি যে এরিয়া তে থাকি , এর আশে পাশে অল্প স্থানের ভিতর ৫টা বিক্রমপুরের মিষ্টান্ন ভান্ডার আছে । বড় একটি কাচা বাজার , ৪টি সুপার শপ , কাল দেখলাম আরো একটি নতুন করে চালু হচ্ছে । তাদের কি বিক্রয় নাই ? অবশ্যই আছে । সব থেকে বড় কথা এই খানে কিন্তু সিলেট থেকে মানুষ বাজার করতে আসবে না । তারপরও এতো বাজার কেন । আর আপনার অনলাইন স্টোরে দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে অর্ডার করা যায় । সেই সাথে দেশের বাহির থেকেও । ই-ক্যাবের সদস্য বেশ কয়েকটি কোম্পানী দেশের বাহিরে পণ্য ডেলিভারী করছে । ইউকে , ইন্ডিয়া , কুয়েত সহ বেশ কিছু দেশ থেকে মানুষ অর্ডার করছে । আসলে আমরা এখনো ঠিক করতে পারি নাই কারা আমাদের কাস্টমার । ভাই একটা কোম্পানী গড় বিক্রয় ২০০ হলেই অনেক এইবার আপনি হিসাব করুন । এতো গুলো মানুষের জন্য কতোটা কোম্পানী দরকার ? আর কেউ খাবার বিক্রয় করছে । কেউ পোশাক , কেউ প্রসাধনী । একটা মানুষে দৈনিক কতোগুলো পণ্য প্রয়োজন পড়ে ? একটু হিসেব করেন । আসলে আমরা নিজেরাই ঠিক করতে পারি নাই , যে আমি কি করবো , কেন করবো , কিভাবে করবো ? এই বিষয় গুলো হলেই ঠিক হয়ে যাবে ।

অনেক বড় হয়ে গলেো ।তার জন্য দুঃখিত । আরো লিখার ছিলো । পরবর্তী কোন দিন আবার লিখবো । সবাইকে ধন্যবাদ । ভুল হলে ক্ষমা করবেন । সর্বশেষ একটি কথা । ই-কমার্স কেবল ব্যবসাই নয় , একটি সেবাও । এই দুটি জিনিস কে এক করতে পারলেই আপনি আলোর মুখ দেখতে পাবেন ।

Published : ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৭ | 1071 Views

  • img1

  • ফেব্রুয়ারি ২০১৭
    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
    « জানুয়ারি   মার্চ »
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • Helpline

    +880 1709962798