ঘুরে আসুন মেঘের দেশ সাজেক ভ্যালি বাংলার দার্জিলিং

Published : আগস্ট ২৪, ২০১৬ | 2231 Views

ঘুরে আসুন মেঘের দেশ সাজেক ভ্যালি (বাংলার দার্জিলিং) ঈদ প্যাঁকেজ .
সাজেক ভ্যালি (খাগড়াছড়ি) 2-রাত 3-দিন
16/09/16 to 18/09/16 & 17/09/16 to 19/09//16

ফেরার তারিখ : 18/09/16 রাত ৮.৩০টায় ।
ভ্রমণের খরচ: (Non Ac Bus) কাপল রুম: জনপ্রতি 8700/- টাকা
বুকিং এর জন্য এখনই যোগাযোগ করুন ।

15/09/16 & 16/09/2016 তারিখ রাত ৯.৩০টায় কমলাপুর থেকে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। বাহন: Non Ac bus.
16/09/16 & 17/09/2016, তারিখ ভোর ৬টায় আমরা পৌঁছে যাব খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়ি পৌঁছে আমরা হোটেলে উঠবো তারপর ফ্রেশ হয়ে, নাস্তা শেষে চান্দের গাড়ি করে আমরা রওনা হব সাজেকের দিকে। খাগড়াছড়ি থেকে সাজেক ৩ ঘন্টার পথ মাত্র। দু’পাশে পাহাড়ের সারি, আঁকা বাঁকা রাস্তা আর সবুজের বুক চিরে এগিয়ে যেতে থাকবে গাড়ি। পথের পাশ হতে পাহাড়ি শিশুর অভ্যর্থনা আপনার হৃদয় ছুঁয়ে যাবে। মনে হবে আপনি বুঝি পৌঁছে গেছেন স্বর্গের দ্বার প্রান্তে। আর আপনার চলার পথের দু’পাশ হতে স্বর্গীয় দূত অপেক্ষায় আছে আপনাকে বরণ করতে।
আসলে একটু ভালো করে অনুভব করলে হয়তো আপনার ভ্রমণের পুরো আনন্দটা-ই পেয়ে যেতে পারেন যাত্রা পথে। যাঁরা দার্জিলিং দেখে এসেছেন, তাঁরাই বলেছেন সাজেক আর দার্জিলিংয়ের মধ্যে কোনো তফাত নেই। দার্জিলিংয়ের প্রাকৃতিক দৃশ্য যা, সাজেকের প্রাকৃতিক দৃশ্যও একই রকম, একই রূপ, একই গুণ।মেঘের চাদরে মোড়ানো পাহাড়, সবুজাভ বৃক্ষরাজিতে ঢেকে আছে ধবধবে সাদা কুয়াশা। বিশাল বিশাল গাছপালা, অজগর সাপের মতো আঁকাবাঁকা আর উঁচু-নিচু পাহাড়ি রাস্তা, সুউচ্চ পর্বত, ভোরসকালে সূর্যোদয় দৃশ্য—কোনোটাই দার্জিলিংয়ের চেয়ে কম নয়। দার্জিলিং ভ্রমণ করে আসা দর্শনার্থীদের ভাষ্যমতে বরং দার্জিলিয়ের চেয়ে বাড়তি কিছু রয়েছে সাজেকে।
সাজেকে পৌঁছে আমরা উঠবো হোটেলে। সাজেকের আবহাওয়া দিনে গরম থাকলে ও অনেক বাতাসের জন্য গরম কম অনুভূত হয়। রাতে রীতিমত শীত নেমে আসে । মধ্যহ্ন ভোজের পর সারাদিন বিভিন্ন স্পট ঘোরা, সেখানে পৌঁছে ফানুশ উৎসব ও রাতের অাহার শেষ করে,
18/09/16 তারিখ সাজেকের মনোমুগ্ধকর ভোর উপভোগ করে সকালের নাস্তা।খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা।

বিভিন্ন স্পট দর্শন যেমন :
১) রিসাং র্ঝনা
২) আলুটিলা গুহা
৩) বৌদ্ধ মন্দির
৪) ঝুলন্ত ব্রীজ( জেলা পরিষদের পার্ক
মধ্যহ্ন ভোজের পর সারাদিন বিভিন্ন স্পট ঘোরা, মধ্যহ্ন ভোজের পর খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা এবং সেখানে পৌঁছে ফানুশ উৎসব ও রাতের অাহার শেষ করে ৮.৩০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা।

যা যা থাকছে ভ্রমণের এর মাধ্যে:
১) ঢাকা খাগড়াছড়ি Non Ac বাসের আপ-ডাউন টিকেট
২) চান্দের গাড়ি ২দিন রিজার্ভের খরচ
৩) 2 রাত থাকার খরচ ও ৮ বেলা খাওয়ার খরচ।
৪) সাজেকে বার বি কিউ ডিনার
৫) খাগড়াছড়িতে ফানুশ উৎসব
যেকোন মাধ্যমে বুকিং চার্জ বা সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ করতে পারেন।
তথ্য সমূহ :
1) 2 রাত 3 দিন ভ্রমণের খরচ 8700 (Non Ac Bus) টাকা প্রতি জন।
2) হোটেল রুম ( প্রতি ২ জনের জন্য একটি রুম )
3) প্রতি জিপে 12 জন।
4) খাগড়াছড়িতে ফ্রেশ হওয়ার জন্য রুম
খাবার মেন্যু-
সকালের নাস্তা -ডিম +সবজি +পরটা +চা অথবা খিচুড়ি +ডিম ভুনা
দুপুরের অাহার -মুরগীর মাংস /মাছ+সবজি +ডাল +সাদা ভাত
রাতের অাহার – মুরগীর মাংস/মাছ +সবজি +ডাল+সাদা ভাত
স্পেশাল ডিনার : মাশরুম + ফিশ ফ্রাই +ভর্তা +বেম্বু চিকেন +ডাল +সাদা ভাত
যা যা দেখবেন :১. সাজেক ভ্যালী ২.কংলাক পাড়া ৩. তারেং ৪.রিছাং ঝরনা ৫. অালুটিলা রহস্যময় সুড়ঙ্গ ৬.সাকংসস নগর বৌদ্ধ মন্দির ৭.ঝুলন্ত ব্রীজ( জেলা পরিষদের পার্ক )
বিশেষ দ্রষ্টব্য :
১। বুকিং-এর টাকা অফেরত যোগ্য
২। ভ্রমণের ১০ দিন আগে পুরো টাকা পরিশোধ করতে হবে।
কি কি নিতে হবে-
১) ব্যাগ ২) গামছা ৩) ছাতা ৪) Odomos cream ৫) টুথপেষ্ট+ সাবান+শ্যম্পু ৬) কেডস/ সেন্ডেল ৭) ক্যামেরা+ব্যাটারী+চার্জার ৮) পলিথিন ৯) সানক্যাপ ১০) সানগ্লাস ১১) সানব্লক ১২) টিস্যু ১৩) ব্যক্তিগত ঔষধ ১৪) লোশন
১৫) রবি সিম (সাজেকে অন্য সিম এর নেট ওয়ার্ক নাই )
& 2nd Pkg,
সাজেক ভ্যালি (খাগড়াছড়ি) ০৪-রাত ০৩-দিন
16 September , 16 to 18 September,;16
বেড়িয়ে আসুন মেঘের দেশ সাজেক ভ্যালি (বাংলারদার্জিলিং)
যাত্রার তারিখ : 15 September & 16 September, 2016,/ রাত ১০টায়।
ফেরার তারিখ : 18 September, রাত ৮.৩০ মিনিট।
4 রাত 3 দিন ভ্রমণের খরচ 8700/ (Non Ac BUS) টাকা প্রতি জন।
যাত্রার বিবরণ :
15 September, 2016 , রাত 9.30 টায় বাসস্ট্যান্ড থেকে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। বাহন: Non Ac.
ভ্রমনের ১ম দিন : ভোর ৬টায় আমরা পৌঁছে যাব খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়িতে নেমে হোটেলে যাব তারপর ফ্রেশ হয়ে নাস্তা শেষে চান্দের গাড়ি করে (স্থানীয় নাম) খাগড়াছড়ির বিভিন্ন স্পট দর্শনযেমন :
১) রিসাং র্ঝনা
২) আলুটিলা গুহা
৩) সাকংসস নগর বৌদ্ধ মন্দির
৪) জেলা পরিষদ পার্ক।
রাত্রি যাপন
16 September & 17 September, 2016, : আমরা সকাল ৮.০০ টায় রওনা হব সাজেকের দিকে। খাগড়াছড়ি থেকে সাজেক ৩ ঘন্টার পথ মাত্র। দু’পাশে পাহাড়ের সারি, আঁকা বাঁকা রাস্তা আর সবুজের বুক ছিঁড়ে এগিয়ে যেতে থাকবে গাড়ি। পথের পাশ হতে পাহাড়ি শিশুর অভ্যর্থনা আপনার হৃদয় ছোঁয়ে যাবে। মনে হবে আপনি বুঝি পৌঁছে গেছেন স্বর্গের দ্বার প্রান্তে। আর আপনার চলার পথের দু’পাশ হতে স্বর্গীয় দূত অপেক্ষায় আছে আপনাকে বরণ করতে।
আসলে একটু ভালো করে অনুভব করলে হয়তো আপনার ভ্রমণের পুরো আনন্দটা-ই পেয়ে যেতে পারেন যাত্রা পথে।
সাজেকে পৌঁছে আমরা প্রথমে উঠবো হোটেলে (পরের সময় টুকু আপনার) রাতের খাবার ৮.৩০ ও রাত্রি যাপন।
Call for Booking and any other quarry.
Cell:+8801740458390.
Email: exasiabltd@gmail.com

কৃতজ্ঞতাই মোঃ হুমায়ুন কবির, সিইও, ওয়ালেটমিক্স পেমেন্ট গেটওয়ে, www.walletmix.com www.fb.com/walletmix

Published : আগস্ট ২৪, ২০১৬ | 2231 Views

  • img1

  • Helpline

    +880 1709962798